1. admin@amadertangail24.com : md Hasanuzzaman khan : The Bengali Online Newspaper in Tangail News Tangail
  2. aminulislamkobi95@gmail.com : Aminul islam kobi : Aminul islam kobi
  3. anowar183617@gmail.com : Anowar pasha : Anowar pasha
  4. smariful81@gmail.com : ArifulIslam : Ariful Islam
  5. arnobalamin1@gmail.com : arnob alamin : arnob alamin
  6. dms09bd@yahoo.com : dm.shamimsumon : dm shamim sumon
  7. kplithy@gmail.com : Lithy : Khorshida Parvin Lithy
  8. hasankhan0190@gmail.com : md hasanuzzaman : md hasanuzzaman Khan
  9. monirhasantng@gmail.com : MD. MONIR HASAN : MD. MONIR HASAN
  10. muslimuddin@gmail.com : MuslimUddin Ahmed : MuslimUddin Ahmed
  11. sayonsd4@gmail.com : Sahadev Sutradhar Sayon : Sahadev Sutradhar Sayon
  12. sheful05@gmail.com : sheful : Habibullah Sheful
বৃষ্টি কামনায় শিশুদের গান ‘আল্লাহ মেঘ দে, পানি দে, ছায়া দেরে তুই’ - Amader Tangail 24
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদঃ-
বাসাইলে ৪৯ কেজি গাঁজাসহ চারজন গ্রেফতার ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কালিহাতীতে মনোনয়ন জমা দিলেন যারা বাসাইলে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শণী অনুষ্ঠিত সখিপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির ঈদপূনর্মিলনী বাতিঘর আদর্শ পাঠাগারের উদ্যোগে উচ্চশিক্ষা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত বাসাইলে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালন টাঙ্গাইলে সৃষ্টি একাডেমিক ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত বাসাইলে ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা অনুষ্ঠিত উল্লাপাড়ায় ২ দিনব্যাপী মানবধর্ম মেলার উদ্বোধন  নাগরপুরে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত বাঙ্গালী সংস্কৃতি জাগ্রত হলে অসাম্প্রদায়িক চেতনা জাগ্রত হবে নাগরপুরে মঙ্গল শোভাযাত্রা উদ্বোধনের সময় বানিজ্য প্রতিমন্ত্রী বাসাইলে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত আমাদের মূল লক্ষ্যই হলো হস্ত ও কুটির শিল্পকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া- বানিজ্য প্রতিমন্ত্রী সখিপুরে একই মাতৃগর্ভে ৬ সন্তান সখিপুর উপজেলা হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগীদের ঈদ আনন্দ

বৃষ্টি কামনায় শিশুদের গান ‘আল্লাহ মেঘ দে, পানি দে, ছায়া দেরে তুই’

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশ : সোমবার, ৫ জুন, ২০২৩
  • ১৮৯ ভিউ
ভাপসা গরম ও তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেছে মানুষের জনজীবন। এই খাঁ-খাঁ রোদে মাঠ-ঘাট ফেটে চৌচির। কোথাও একটু নেই স্বস্তি। তারমধ্যে চলছে ভয়াবহ লোডশেডিং। এতো গরমের মাঝেও আবহমান গ্রাম-বাংলায় বিলুপ্তির পথে চলে যাওয়া মেঘরানী উৎসবে আমেজ খোঁজে বাঙালিরা। এ উৎসবে বৃষ্টি ও শীতল বাতাস কামনা করা হয়। আর সেই কামনায় এমন উৎসবে খাঁ-খাঁ রোদ এবং গরমের মধ্যে বাড়ি বাড়ি ঘুরে চাল-ডাল তোলে শিশু-কিশোররা। সাথে গানও গায়। এই উৎসবকে গ্রামের ভাষায় “এ্যাদরে-ভ্যাদরে” নামে বেশ পরিচিত।
রোরবার (৫ জুন) দুপুরে এমন উৎসব পালনের চিত্র দেখা যায় টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলা গোবিন্দাসী ইউনিয়নের কয়েড়া পূর্বপাড়া গ্রামে। প্রচন্ড গরম ও প্রখর রোদকে অপেক্ষা করে খালি গায়ে শিশু-কিশোররা দলবেঁধে বাড়ির উঠানে উঠানে কাদা মাটিতে ঘরাঘরি দিয়ে ‘আল্লাহ মেঘ দে, পানি দে, ছায়া দে, আল্লাহ মেঘ দে- আছমান হইলো টুডা টুডা জমিন হইলো ফাডা, মেঘরানী ঘুমাইয়া রইছে মেঘ দিব কেডা। শিশু-কিশোররা এমন কিছু গান গেয়ে বাড়ি ঘুরে ঘুরে চাল-ডাল, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ ইত্যাদি সংগ্রহ করে খিচুড়ি রান্না করবেন তারা।
এমন উৎসব দেখে সুমাইয়া ইসলাম শিমু বলেন, আমার নানার বাড়িতে এসে এই প্রথম এমন উৎসব দেখতে পেলাম। এরআগে কখনো এমন উৎসব দেখেনি। আর অন্যান্যরা বাড়ির উঠানে পানি ঢেলে দিচ্ছিল। আল্লাহ মেঘ দেন, পানি দেন, ছায়া দেন ও আল্লাহ  মেঘ দেন বলে একটি ডালি-বা কুলা মাথায় নিয়ে গ্রাম-অঞ্চলের বিভিন্ন বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাল-ডালসহ ইত্যাদি সামগ্রী তুলছে। এতে সেখানে শিশু-কিশোরীরা দলবেঁধে ঘরাঘরি করে এবং বাড়ি ঘুরে ঘুরে চাল-ডাল সংগ্রহ করে। আমার নানু তাদেরকে চাল দিয়েছেন। পরে তারা সবজি খিচুড়ি রান্না করবেন।
গ্রাম-বাংলার এমন এ্যাদরে ভ্যাদর বা মেঘরানী উৎসবে অংশ নেওয়া শান্ত ইসলাম, আরিফুল ইসলাম, মাহিম ও হাসানসহ অনেকে বলেন, কয়েক সপ্তাহ ধরে আমাদের এখানে ব্যাপক গরম ও তাপদহ চলছে। এই গরমের ফলে কোথাও স্বস্তি পাচ্ছি না। গত বছরও এই দিনে অনেক গরম ছিল। তাই গতবারের মতো এবারও আমরা এমন উৎসব পালন করে বৃষ্টি কামনায় এমন উৎসবের আয়োজন করেছি। আমরা কয়েক বন্ধুরা মিলে তীব্র গরমের মাঝে আল্লাহ মেঘ দেন, বৃষ্টি দেন ও ছায়া দেন বলে মহান আল্লাহ’র কাছে বৃষ্টি ও শীতল বাতাস কামনা করছি। নিশ্চয় আল্লাহ বৃষ্টি বৃষ্টি দিবেন।
এ ব্যাপারে জেলার গোপালপুর উপজেলার বাংলা বাজার ছামাদিয়া সিনিয়র মাদরাসার প্রভাষক আলীম আকন্দ বলেন, যখনই মানুষের ওপর কোনো দুর্যোগ নেমে আসে, তখন বিভিন্নভাবে তারা আল্লাহ’র কাছে সহায়তা চায়। আমাদের দেশে যখন বড় ধরণের খরা দেখা দেয় তখন বৃষ্টির অভাবে মাঠ-ঘাট চৌচির হয়ে যায়, কৃষকের খেতের ফসল ও গাছপালা মরে যায়। তখন গরম থেকে বৃষ্টি কামননায় সাধারণত দিনের বেলায় গ্রামের শিশু-কিশোররা দল বেঁধে গান গেয়ে বাড়িতে বাড়িতে এ্যাদরে ভ্যাদরে উৎসব করে সৃষ্টিকর্তার কাছে বৃষ্টি প্রার্থনা করে। এটি বাঙালির পুরোনো দিনের সংস্কৃতি।

নিউজটি সোস্যালমিডিয়াতে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ
© All rights reserved © 2021
Theme Customized BY LatestNews